1. [email protected] : admi2017 :
  2. [email protected] : annagilliam :
  3. [email protected] : antonioligon :
  4. [email protected] : dexterarnott :
  5. [email protected] : kaseyhartwell1 :
  6. [email protected] : pimgiuseppe :
  7. [email protected] : test114192 :
  8. [email protected] : test15530113 :
  9. [email protected] : test18644919 :
  10. [email protected] : test2246679 :
  11. [email protected] : test25777112 :
  12. [email protected] : test27772429 :
  13. [email protected] : test28072043 :
  14. [email protected] : test29576900 :
  15. [email protected] : test34936489 :
  16. [email protected] : test35340289 :
  17. [email protected] : test37141039 :
  18. [email protected] : test3734843 :
  19. [email protected] : test41175725 :
  20. [email protected] : test43179736 :
  21. [email protected] : test44134420 :
  22. [email protected] : test45570592 :
  23. [email protected] : test46751630 :
  24. [email protected] : test8373381 :
  25. [email protected] : wpuser_lfudhofinnhh :
সোমবার, ১৭ জানুয়ারী ২০২২, ১০:১৩ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
নারায়ণগঞ্জ জেলা ও মহানগর আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের সকল থানা-ওয়ার্ড কমিটি বিলুপ্ত ঘোষণা নৌকা হারবে না : শামীম ওসমান হ্যাটট্রিক জয় আইভীর বেসরকারি ভাবে বিজয়ী কাউন্সিলর ও সংরক্ষিত নারী কাউন্সিলরদের নাম ঘোষণা নাসিক ২৪নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর জনপ্রিয় প্রার্থী আলহাজ মোহাম্মদ খোকন এর নজরকাড়া বিশাল শোডাউন ২৩নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর প্রার্থী (লাটিম মার্কা) সাইফুদ্দিন আহমেদ দুলাল প্রধানের বিশাল মিছিল ঘুড়ি মার্কায় ভোট চেয়ে ১৬নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর প্রার্থী রিয়াদ হাসানের বিশাল শোডাউন ভালোবেসে ভোট দিয়ে সেবা করার সুযোগ দিন: ২৩নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর প্রার্থী (লাটিম মার্কা) দুলাল প্রধান কাউন্সিলর প্রার্থী মুন্নার পক্ষে একাট্টা ১৮নং ওয়ার্ডবাসী ১৬নং ওয়ার্ডের ঝুঁকিপূর্ণ কেন্দ্রে বিশেষ নিরাপত্তা বাহিনী মোতায়েনের আহবান কাউন্সিলর প্রার্থী মোঃ রিয়াদ হাসানের

নারায়ণগঞ্জ জেলা “বিএনপি” নামের জাহাজটি অজানা গন্তব্যের উদ্দেশ্যে ধাবিত হচ্ছে।তৃণমূলের দৃষ্টি এখন তরুন ও নবীন নেতাদের দিকে

গিয়াসউদ্দিন লাভলু, সিনিয়র করসপন্ডেন্টঃ
  • আপডেট টাইম : বৃহস্পতিবার, ১১ ফেব্রুয়ারী, ২০২১
  • ৩৯৫ বার
এ বছরের ১ জানুয়ারী নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপির ৪১ সদস্য বিশিষ্ট আহবায়ক কমিটি অনুমোদনের পরে ৪২ এ উন্নীত করা হয়।অথচ ৪২ দিন অতিবাহিত হলেও অনুমোদিত কমিটি কিছু ফুলেল শুভেচছা বিনিময় এবং যুগ্ম আহবায়কদের নামে গুটিকয়েক ক্ষুদ্র পরিসরের সভা।যা অনুষ্ঠিত হয়েছে হয়, চার তারকা হোটেলে বা অভিজাত কোন অফিসে।আসল কাজের কাজ মোটেও হাতে নিতে পারেনি,বা হাতে নেয়নি ইচ্ছায় অথবা অনিচ্ছায়।
নাম প্রকাশ না করার শর্তে নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপির সাবেক এক নেতা টেলিগ্রাফ নিউজ২৪.কম কে বলেন,নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপির বর্তমান শীর্ষ দুই নেতা এখানে সেখানে আলোচনার নামে কালক্ষেপন করছেন। স্বচ্ছতা ও উদারতা নিয়ে শুরু করলে,উনারা যে একঝাঁক তরুন নেতৃত্বকে পাশে পেয়েছেন, তাদেরকে কাজে লাগাতে পারতেন। কারণ ওইসব নেতারা দলের অনেকদিনের পুরোনো কর্মী। তিনি আরও বলেন, যেসকল তরুন নেতৃবৃন্দরা সদস্য হয়েছেন, বর্তমান জেলা বিএনপির শীর্ষ নেতা তৈমূর আলম ও মামুন মাহমুদ কমিটির যুগ্ম আহবায়কদের চেয়ে অধীক যোগ্যরা সদস্য হয়েছেন।তাদের যোগ্যতা ও অভিজ্ঞতাকে পরখ করতে পারতেন। কিন্তুু তা না করে সাবেক সাংসদ, নির্বাহী কমিটির সদস্যদের নিয়ে সভার নামে সময় ক্ষেপন করে নিজেদের কাঙ্ক্ষিত লক্ষের দিকেই এগিয়ে যাচ্ছেন।
এ প্রতিবেদককে ফতুল্লা থানা ছাত্রদলের সাবেক সাধারণ সম্পাদক সাইফুল ইসলাম বিপ্লব বলেন,বর্তমান নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপিকে নিয়ে আশাবাদী হয়েছি, কারণ আমি আশাবাদী মানুষ। এই কমিটিতে রাজপথের লড়াক সৈনিকদের সংমিশ্রণে বেশ ক্ষুরধার হয়েছে। বিভিন্ন অঙ্গসংগঠনের যেসকল নেতারা এই কমিটিতে অন্তর্ভুক্ত হয়েছেন, তাদের অনেকের পিছনে থেকে আমিও রাজনীতি করেছি। জানি,তারা সবাই অধিক ত্যাগী, অভিজ্ঞ এবং যোগ্য বলেই এড. তৈমূর আলম খন্দকার এবং অধ্যাপক মামুন মাহমুদের নেতৃত্বে তারা সদস্য হয়ে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে দলকে এগিয়ে নিতে প্রস্তুুত রয়েছেন।যদি সঠিক পদ্ধতিতে কমিটি গঠন হয় তবে আমি ফতুল্লা থানা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক পদে কাউন্সিলের মাধ্যমে প্রার্থী হবো। দল যদি মনে করে আমাকে এই পদে নিযুক্ত করবে, তবে আমার শেষ রক্তবিন্দু দিয়ে লড়াই সংগ্রাম করে যাবো।
বিপ্লব আরোও বলেন, জানিনা কি এমন অজানা কারনে তৈমূুর ভাই ও মামুন ভাই ধীর নীতি পালন করছেন। উনাদের মূল যে কাজ, তা উনারা মনে হয় করতেই চান না।মনে হয় সেটাই হবে উনাদের জন্য অতি নিরাপদ একটি কাজ।যেমন মোশাররফ ভাই, রোজেল ভাই,একরামুল কবির মামুন ভাই, রিয়াদ চৌধুরী, মাসুক রাজিব সহ আরো অনেকেই স্ব স্ব সংগঠন কে যোগ্যতার সাথে নেতৃত্ব দিয়েছেন। তাদের হাতে গড়া অনেকেই এখন হয় যুবদল, না হয় ছাত্রদল, নতুবা স্বেচ্ছাসেবক দল সহ বিভিন্ন অঙ্গসংগঠনের জেলা বা বিভিন্ন থানায় নেতৃত্ব দিচ্ছে।যে যোগ্যতা একাধিক যুগ্ম আহবায়কেরই নেই।তিনি আরও বলেন, জেলা বিএনপি যদি তাদের প্রদত্ত মূল কাজ থানা ও পৌর কমিটি গঠনে ব্যার্থ হন,তবে আমি ও তো আমার কাঙ্ক্ষিত লক্ষে পৌঁছে দলকে সেবা করতে পারবোনা। তাই তৈমূর ভাই ও মামুন ভাইয়ের কাছে আমার জোড়ালো দাবী জেলা বিএনপির তরুন ও নবীন নেতৃবৃন্দকে কাজে লাগিয়ে কমিটি গঠন পুর্নগঠনের মাধ্যমে নিজেদেরকে নিঃস্বার্থ প্রমান করুন।
উল্লেখ্য ২০২১ সালের প্রথম দিনেই নতুন অঙ্গীকার নিয়ে পথচলা নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপি দলীয় কোন্দলের কারনে হোঁচট খেয়ে আবার উঠে দাঁড়িয়ে যাবে এমন বিশ্বাস তৃণমূলের কর্মীসমর্থকদের। তবে অভিজ্ঞ কিছু সাবেক ফতুল্লা ও জেলা বিএনপির নেতার সাথে আলাপকালে তারা জানান, কমিটির মূল ফোকাস আছে এড.তৈমূর আলম খন্দকারের উপরে। এখন দেখা যাক, দলটাকে শক্তিশালী করতে উনি কতটুকু আন্তরিক। নাকি পূর্বের মত কাঁচের ঘরে বসে রাজনীতি করা ব্যাক্তিদের এবং দল থেকে দুহাত ভরে সুযোগ সুবিধা নেয়া বসন্তের কোকিলদের আতিথেয়তা নিয়ে নিজেকে আবার সমালোচনার পাত্রে পরিণত করেন।
সাবেক ঐ নেতার আরও বলেন, দেখেন না ঠুনকো অজুহাতে গুরুত্বপূর্ণ কর্মসূচী পালনে ব্যার্থ হলো। যেখানে বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা শহীদ জিয়া’র মুক্তিযোদ্ধার সনদ বাতিলের বিরুদ্ধে প্রতিবাদে সারাদেশের বিএনপি ও অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীদের ঘুম নেই। অথচ উনারা কেমন যেন নির্ভার।কি যে তাদের উদ্দেশ্য, তা খুঁজে বের করতে হলে জেলা বিএনপির তরুন ও নবীনদের এগিয়ে এসে উনাদের কে অগ্রভাগে রেখে আন্দোলন ও দল পুর্নগঠনের পক্রিয়া সচল করতে হবে। অবস্থা দেখে মনে হচ্ছে উনারা এভাবেই অনন্তকাল কাটিয়ে দিতে চান।
এখন দেখার পালা বর্তমান নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপি কতটুকু স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতার সাথে জেলা বিএনপি পথচলায় অবিচল থাকে। নাকি আবার অজানা কোন গন্তব্যে গিয়া ভিড়ে থাকবে বিএনপি নামের এই জাহাজ।

নিউজটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..
© All rights reserved © 2020 Telegraphnews24.com
Theme Dwonload From telegraphnews24.Com