1. [email protected] : admi2017 :
  2. [email protected] : test2246679 :
  3. [email protected] : test25777112 :
  4. [email protected] : test29576900 :
  5. [email protected] : test34936489 :
  6. [email protected] : test44134420 :
  7. [email protected] : test46751630 :
  8. [email protected] : test8373381 :
শনিবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০২:৪২ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
আইভী ব্যর্থ,নগরবাসীর কাছে প্রমানিত: এড. শাখাওয়াত হোসেন খান কবি কন্ঠে কবিতা পাঠ ও রুপান্তর রৌদ্রছায়া সাহিত্য সম্মাননা ২০২১ অনুষ্ঠিত আলীরটেকে মুজিব শতবর্ষ উপলক্ষে ফাইনাল খেলায় প্রধান অতিথি চেয়ারম্যান প্রার্থী সায়েম আহম্মেদ বাহাউদ্দিন নাসিমের মা’র রুহের মাগফেরাত কামনায় কাউন্সিলর দুলাল প্রধানের মিলাদ ও দোয়া আমি এমন কাজ করে যেতে চাই যেনো মৃত্যুর পরেও লোকে বলে একজন ভালো মানুষ ছিলেন : ২২নং ওয়ার্ডে তরুণ কাউন্সিলর প্রার্থী খান মাসুদ দুর্নীতিমুক্ত রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠায় নৈতিকতাসম্পন্ন ছাত্র সমাজের বিকল্প নেই : ফতুল্লা ইশা ছাত্র আন্দোলন র‌্যাব-১১ এর পৃথক অভিযানে রূপগঞ্জ হতে ১ মাদক ব্যবসায়ী এবং ডাকাতি মামলার ১ পলাতক আসামী গ্রেফতার সিদ্ধিরগঞ্জের ৫নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের কর্মী সভা অনুষ্ঠিত নাসিক ২২নং ওয়ার্ডে কাউন্সিলর পদে খান মাসুদকে কোর্টপাড়া পঞ্চায়েত কমিটির পূর্ণ সমর্থন এবার বঙ্গবন্ধুর ভুল শুধরানোর ভূমিকায় মেয়র আইভী!

বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমান এর “বীর উত্তম” খেতাব বাতিলের সিদ্ধান্তে নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপির নিন্দা ও প্রতিবাদ

প্রেস রিলিজ
  • আপডেট টাইম : বুধবার, ১০ ফেব্রুয়ারী, ২০২১
  • ১৩১ বার

বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা, মহান স্বাধীনতার ঘোষক, মুক্তিযুদ্ধের সেক্টর কমান্ডার, শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান এর “বীর উত্তম” খেতাব বাতিলের সিদ্ধান্তে নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপির তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ।

 

গত ৯ই ফেব্রুয়ারী ২০২১ইং, মঙ্গলবার জাতীয় মুক্তিযোদ্ধা কাউন্সিল (জামুকা) এর সভায় মহান স্বাধীনতার ঘোষক, বীর সেক্টর কমান্ডার, শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের “বীর উত্তম” খেতাব বাতিল করার সিদ্ধান্ত গ্রহণে নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপির পক্ষে তীব্র প্রতিবাদ ও নিন্দা জানিয়েছেন আহবায়ক তৈমুর আলম খন্দকার ও সদস্য সচিব অধ্যাপক মামুন মাহমুদ।

১০ ফেব্রুয়ারী বুধবার গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে তারা বলেন, যেই জিয়াউর রহমানের স্বাধীনতার ঘোষণায় দিশেহারা জাতি সাহসী হয়ে যুদ্ধে ঝাপিয়ে পড়েছিলো, যেই জিয়াউর রহমান একজন অন্যতম সেক্টর কমান্ডার হয়ে হাজার হাজার মুক্তিযুদ্ধাকে সংগঠিত করেছিলেন, অসামান্য বীরত্ব ও দক্ষতায় যুদ্ধ করে দেশ স্বাধীন করেছিলেন সেই বীর মুক্তিযোদ্ধা জিয়াউর রহমান এর “বীর উত্তম” খেতাব বাতিলের সিদ্ধান্ত নেওয়ার অর্থ হলো সমগ্র মুক্তযুদ্ধকে অপমান করা, বাংলাদেশের স্বাধীনতার ইতিহাসকে অস্বীকার করার প্রচেষ্টা করা। বন্ধুকের নল এবং শঠতায় ভর করে সরকার ক্ষমতায় বসে থাকা এই সরকার তার রাজনৈতিক প্রতিহিংসা চরিতার্থ করার জন্যই এইধরনের ভয়ংকর নিকৃষ্ট সিদ্ধান্ত নেওয়ার প্রয়াস চালিয়েছে। ক্ষমতার দম্ভে অন্ধ হয়ে তারা বিএনপিকে ধ্বংস করার পায়তারায় একের পর এক হীনপন্থা অবলম্বন করে যাচ্ছে, জিয়াউর রহমানের খেতাব বাতিলের প্রচেষ্টা এই ধরনের একটি জঘন্য প্রতিহিংসাপরায়ন কাজ। আসলে তারা মনে করেছে, জিয়াউর রহমানের খেতাব কেড়ে নিয়ে তারা জিয়াউর রহমানের অনন্য ইতিহাস মুছে ফেলতে পারবে, বাংলাদেশের কোটি কোটি জনগণের অন্তর থেকে জিয়া ও জিয়া পরিবারকে সরিয়ে দিতে পারবে। কিন্তু এই ভ্রষ্ট সরকার গত ১৪ বছরে বিএনপির উপর এতো অন্যায় অত্যাচার করে, জিয়া পরিবারকে ধ্বংস করার নানা প্রকারের চেষ্টা করেও কি বুঝতে পারে নাই যে জিয়াউর রহমান ও তার দল বাংলাদেশের মানুষের কাছে পর্বতসম আস্থারস্থল, যা শতচেষ্টা করেও টলানো যাবে না। আমরা স্পষ্ট ভাষায় সরকারকে বলে দিতে চাই, আপনারা আপনাদের এই জঘন্য হীন প্রচেষ্টা থেকে বিরত থাকুন, মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সমরনায়ক জিয়াউর রহমানকে অপমান করার মাধ্যমে মুক্তযুদ্ধ ও সমস্ত মুক্তিযোদ্ধাদেরকে অপমান করবেন না। এই দেশটাকে বিশ্বের দরবারে আর হেয় করবেন না। মুক্তিযোদ্ধা কাউন্সিলের সিদ্ধান্ত অবিলম্বে বাতিল করার নির্দেশনা দিন। না হলে, চরম আন্দোলনের মাধ্যমে এই ধরনের হীন চেষ্টার দাতভাঙ্গা জবাব দেওয়া হবে।

 

(বার্তা প্রেরক:- রিয়াজুল ইসলাম রিয়াজ সদস্য, নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপি।)

নিউজটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..
© All rights reserved © 2020 Telegraphnews24.com
Theme Dwonload From telegraphnews24.Com