1. [email protected] : admi2017 :
  2. [email protected] : test2246679 :
  3. [email protected] : test29576900 :
  4. [email protected] : test44134420 :
শনিবার, ২৪ জুলাই ২০২১, ১১:১২ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
কঠোর বিধি নিষেধ: দ্বিতীয় দিন চলছে গণসঙ্গীত শিল্পী ফকির আলমগীর আর নেই করোনা টিকার প্রথম ডোজ নিলেন পথের সময় সম্পাদক তৌকির রাসেল আড়াইহাজারে কোভিড-১৯ টেষ্টের নামে প্রতারণা,র‌্যাব-১১ এর অভিযানে গ্রেফতার ১ যথাযোগ্য মর্যাদায় সারাদেশে ঈদুল আজহা উদযাপিত শেষ মুহূর্তে জমে উঠেছে রাজধানীর কোরবানির পশুর হাট রোটারী ক্লাব অব ডান্ডি ও তিলোত্তমা নারায়ণগঞ্জ জয়েন প্রজেক্টের কোমলমতী শিশুদের মাঝে পবিত্র কোরআন শরীফ,পাঞ্জাবী-হিজাব ও টুপি প্রদান মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস ও বঙ্গবন্ধু সম্পর্কে প্রচুর জ্ঞান আহরন করতে হবেঃ বীরমুক্তিযোদ্ধা এমএ রশিদ কোন মানুষ যেন ভ্যাকসিন থেকে বাদ না পড়ে, সেভাবে আমরা পদক্ষেপ নিয়েছি : প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নারায়ণগঞ্জে করোনা : ২৪ ঘন্টায় আক্রান্ত ১৯২জন

এইচএসসি পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশিত, ১ লাখ ৬১ হাজার৮০৭ শিক্ষার্থী জিপিএ-৫

টেলিগ্রাফ রিপোর্ট
  • আপডেট টাইম : শনিবার, ৩০ জানুয়ারী, ২০২১
  • ১২০ বার

শনিবার প্রকাশিত হয়েছে উচ্চ মাধ্যমিক সার্টিফিকেট (এইচএসসি) ও সমমানের পরীক্ষার ফল। ২০২০ সালে ১৬১,৮০৭ জন শিক্ষার্থী জিপিএ-৫ অর্জন করেছে, যা ২০১৯ সালে ৮৭,২৮৬ জন। ২০২০ সালে ১৩ লক্ষেরও বেশি শিক্ষার্থী এই পরীক্ষার জন্য নিবন্ধিত হয়েছে, যা দেশটিতে ক্রমবর্ধমান করোনাভাইরাস মহামারীর কারণে বাতিল করা হয়েছে।

ঢাকার সেগুনবাগিচায় আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইনস্টিটিউটে এক অনুষ্ঠানে শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যানদের কাছ থেকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পক্ষ থেকে ফলাফলের সারসংক্ষেপ পেয়েছেন।
গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এই কর্মসূচিতে যোগ দেন।

মাধ্যমিক বিদ্যালয় সার্টিফিকেট (এসএসসি) ৭৫ শতাংশ এবং জুনিয়র স্কুল সার্টিফিকেট (জেএসসি) এবং এর সমতুল্য পরীক্ষার ফলাফল থেকে ২৫ শতাংশ নম্বর সংগ্রহ করে ফলাফল প্রকাশ করা হয়েছে।

পরীক্ষার্থীরা শিক্ষা বোর্ডের ওয়েবসাইট http://www.educationboardresults.gov.bd/ এবং তাদের নিজ নিজ শিক্ষা বোর্ডের ওয়েবসাইট থেকে ফলাফল পেতে পারেন।

২০২০ সালের এইচএসসি ব্যাচ হচ্ছে প্রথম ব্যাচ যারা পরীক্ষায় বসা ছাড়াই সার্টিফিকেট পাবে, কারণ গত বছরের অক্টোবরে সরকার কোভিড-১৯ মহামারীর কারণে এইচএসসি পরীক্ষা না করার সিদ্ধান্ত নেয়।

বাংলাদেশের ইতিহাসে এই প্রথম কোন পাবলিক পরীক্ষা বাতিল করা হয়েছে এবং শিক্ষার্থীরা পরীক্ষায় বসা ছাড়াই সার্টিফিকেট পাবে।

এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষা ২০২০ সালের ১ এপ্রিল শুরু হওয়ার কথা ছিল, কিন্তু মহামারীর কারণে সরকার ২২ মার্চ তা স্থগিত করে দেয়।
সারা দেশে ১১টি শিক্ষা বোর্ডের অধীনে পরীক্ষায় বসার কথা ছিল ১,৩৬৫,৭৮৯ জন ছাত্রছাত্রীর।

এর আগে সোমবার সরকার এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশের জন্য তিনটি সংশোধনী বিলের একটি গেজেট প্রকাশ করে।

গেজেট প্রকাশের আগে রাষ্ট্রপতি মোঃ আব্দুল হামিদ বিলে সম্মতি দেন।

পরীক্ষা ছাড়াই এইচএসসির ফলাফল প্রকাশের পথ প্রশস্ত করে গত ২৪ জানুয়ারি সংসদে সংশোধনী বিল পাস হয়।

এই বিলগুলো হল “মাধ্যমিক ও মাধ্যমিক শিক্ষা (সংশোধনী) বিল ২০২১, “বাংলাদেশ কারিগরি শিক্ষা বোর্ড (সংশোধনী) বিল ২০২১ এবং “বাংলাদেশ মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ড (সংশোধনী) বিল ২০২১।

পূর্ববর্তী আইন অনুযায়ী, পরীক্ষা ছাড়া এইচএসসি ফলাফল প্রকাশের কোন বিধান ছিল না। যেহেতু কোভিড-১৯ মহামারীর মধ্যে পরীক্ষা করা সম্ভব হয়নি, তাই সংশোধনী বিল পেশ করা হয়।

এই মাসের শুরুতে মন্ত্রিসভা মাধ্যমিক ও মাধ্যমিক শিক্ষা অধ্যাদেশ ১৯৬১ এর একটি সংশোধনীর খসড়া বিল অনুমোদন করে, যার ফলে শিক্ষা বোর্ডগুলো কোন সংকটের সময় পরীক্ষা ছাড়াই ফলাফল প্রকাশ করতে পারে।

নিউজটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..
© All rights reserved © 2020 Telegraphnews24.com
Theme Dwonload From telegraphnews24.Com