1. [email protected] : admi2017 :
  2. [email protected] : annagilliam :
  3. [email protected] : test2246679 :
  4. [email protected] : test25777112 :
  5. [email protected] : test29576900 :
  6. [email protected] : test34936489 :
  7. [email protected] : test44134420 :
  8. [email protected] : test46751630 :
  9. [email protected] : test8373381 :
সোমবার, ১৮ অক্টোবর ২০২১, ১১:৩৮ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
শহীদ শিশু শেখ রাসেলের ৫৭তম জন্ম বার্ষিকী উপলক্ষে হলি উইলস স্কুলে শিশু-কিশোর চিত্রাংকন প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত বঙ্গবন্ধুর ছোট ছেলে শেখ রাসেলের জন্মদিন আজ নারায়ণগঞ্জে ১৬ টি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন : ৮৪৪ প্রার্থীর মনোনয়ন দাখিল, চেয়ারম্যান পদে ৬৪ জন আইভীর ই-ট্রেড লাইসেন্স গলার কাঁটা: ৩ মিনিটের সেবা পাচ্ছে না ৩ দিনেও নৌকার জন্য মরিয়া আতংকগ্রস্থ আইভী ! বন্দরের পাঁচটি ইউপি নির্বাচন: স্থানীয় এমপিকে চ্যালেঞ্জ দিয়ে মাঠে নেমেছে আওয়ামী লীগ বিটিভির নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি আতাউর রহমানকে সংবর্ধণা দিয়েছে বন্দর প্রেসক্লাব র‌্যাব-১১ এর অভিযানে রূপগঞ্জ হতে দেশীয় অস্ত্রসহ ৪ চাঁদাবাজ গ্রেফতার বন্দরে ৪৭তম বর্নাঢ্য জশনে জুলুস উদযাপিত : রাস্ট্রীয়ভাবে মিলাদুন্নবী (সাঃ) পালনের সরকারী সিদ্ধান্তে সুন্নী মুসলমানদের বিজয় হয়েছে মনোনয়নপত্র দাখিল করলেন কুতুবপুরের নৌকার মাঝি মনিরুল আলম সেন্টু 

নারায়ণগঞ্জে বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস ও শেখ রাসেল শিশু সংসদের ২৬তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালন

টেলিগ্রাফ রিপোর্ট:
  • আপডেট টাইম : রবিবার, ১০ জানুয়ারী, ২০২১
  • ৫৫ বার

বাংলাদেশ একটি রক্তস্নাত ভাষিক রাষ্ট্র। বিশ্বের অন্য কোন রাষ্ট্রের জনগন মাতৃভাষার অধিকার অর্জন ও ধর্ম নিরপেক্ষ স্বাধীন রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠার জন্য বাঙালির মত অকাতরে আত্মহুতি দেয়নি। ভাষা আমাদের বাংলা, জাতি স্বত্তায় আমরা বাঙালি। দেশের নাম বাংলাদেশ। বাঙালির স্বাধীনতা হাজার বছরের তপস্যা ও শতাব্দীর নিরবিচ্ছিন্ন সংগ্রামের ফসল। তৎকালীন সময়ে হানাদার কবলিত বাংলাদেশে সাড়ে সাত কোটি বাঙালির নজির বিহীন ত্যাগ তিতিক্ষা অকুতোভয় মুক্তিযোদ্ধাদের জান কসম লড়াই, তিরিশ লক্ষ শহীদ ও দুই লক্ষ মা বোনদের সম্ভ্রমের বিনিময়ে অর্জিত হয়েছে বাংলাদেশের স্বাধীনতা। পৃথিবীর প্রথম বাঙালি রাষ্ট্রের মহান স্থপতি ও প্রতিষ্ঠাতা দেশ মাতৃকার শ্রেষ্ঠ সন্তান সর্ব কালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। ১৫ই আগষ্ট, ১৯৭৫, বাঙালির ইতিহাসে সবচেয়ে শোকাবহ দিন। বঙ্গজননীর নিষ্পাপ শিশু পুত্র শেখ রাসেলসহ জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও দেশে থাকা তার স্ব-পরিবারের সদস্যরা সেই কলঙ্কীত দিনে জাতীয় ও আন্তর্জাতিক ষড়যন্ত্রের নীল নকশায় এক নির্মম ও মর্মান্তিক হত্যা কান্ডের স্বীকার হন। ষড়যন্ত্রকারীরা বাঙালির আশা, স্বপ্ন, ভালবাসা এবং একাত্তরের মহান মুক্তিযুদ্ধের শ্রেষ্ঠ অর্জন গুলো কেড়ে নিয়েছে। মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ও মূল্যবোধ ভূলন্ঠিত ও পদদলিত হয়েছে। অর্থনৈতিক মুক্তির সংগ্রাম থমকে গেছে। জাতির জনকের কাঙ্খিত শোষনমুক্ত সমাজ ব্যবস্থা ও সোনার বাংলা গড়ার লালিত স্বপ্নচূর্ণ হয়েছে। মুখ থুবরে পরেছে পরমত সহিষ্ণুতা, গনতান্ত্রিক সহনশীলতা ও সকল ধর্মমতের প্রতি শ্রদ্ধা পোষনের অসাম্প্রদায়িক মূল্যবোধ এবং “ধর্ম যার যার রাষ্ট্র সকলের” এই মহান মানবিক মূল্যবোধ। দৃষ্ট স্পর্ধায় মাথা তুলেছে উদ্ধত সাম্প্রদায়িক অপশক্তি। সেই পশুশক্তির ঘৃন্য জিঘাংসার অনলে ও প্রতি হিংসার যুব কাষ্ঠে প্রান দিতে হয়েছে নিষ্পাপ শিশু শেখ রাসেলকে। রাসেল বাঙালির সেই রক্তাক্ত হৃদপিন্ড নীল বেদনার অশ্রু ভেজা সেই আবেগ, সংগ্রামী বাংলার অভিনাসী স্পন্দন ও দৃপ্ত অঙ্গীকার। যাকে আমরা স্বপ্ন বাসনা কর্ম ও সাধনায় লালন করে সমকাল ও অনাগত ভবিষ্যতে সোনার বাংলার সব শিশুর জন্য উজ্জ্বল নিরাপদ নিঃশঙ্ক ও সমৃদ্ধ ভবিষ্যত গড়ে তুলতে চাই এবং এই বিশ্বকে সব শিশুর বাস যোগ্য করার লক্ষ্যে কর্ম ও সাধনাকে নিয়োজিত করতে চাই। শেখ রাসেলের স্মৃতিকে শিশু কিশোরদের অধিকার আদায়ের অঙ্গিকার হিসাবে ১৯৯৪ সালের ১০ জানুয়ারী জাতির জনকের জ্যেষ্ঠ জামাতা বিশিষ্ট পরমানু বিজ্ঞানী ড. এম.এ ওয়াজেদ মিয়া শেখ রাসেল শিশু সংসদের অগ্রযাত্রা শুরু করেন। ১৯৭২ সালের ১০ জানুয়ারি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান পাকিস্তান কারাগার থেকে মুক্তি পেয়ে দেশে ফিরে এলে দেশ প্রেমিক বাঙালির মধ্যে একটি নব চেতনার উন্মেষ ঘটে। যুদ্ধ বিধ্বস্থ বাংলাদেশকে তিনি অল্প সময়ে একটি শক্ত ভীতের উপরে দাঁড় করাতে সক্ষম হয়েছেন। বঙ্গবন্ধু যদি আজ বেঁচে থাকতেন তাহলে বাংলাদেশ এখন আরও অনেক উন্নত দেশের সারিতে স্থান করে নিতেন। ১৯৯৪ সালের ১০ জানুয়ারি ড. এম.এ ওয়াজেদ মিয়া সংগঠনটি প্রতিষ্ঠার পর থেকে শিশু-কিশোরদের প্রতিভা বিকাশের জন্য শিশু-কিশোর চিত্রাঙ্কনসহ বিভিন্ন প্রতিযোগিতা ও আলোচনা সভা শিশু অধিকার প্রতিষ্ঠায় মানবন্ধন এবং নানা কর্মসূচী পালন করেন।

 

গতকাল ১০ জানুয়ারি সন্ধ্যায় জেলা কার্যালয়ে বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস ও শেখ রাসেল শিশু সংসদের ২৬তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষ্যে সংগঠনের নারায়ণগঞ্জ জেলা কমিটির আয়োজনে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি সংগঠনের কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি ও বাংলাদেশ আওয়ামলীগের উপদেষ্টা মন্ডলির অন্যতম সদস্য এবং বাংলাদেশ আওয়ামলীগের মহিলা বিষয়ক উপকমিটির চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. সুলতানা শফির পাঠানো লিখিত বক্তব্যটি সংগঠনের কেন্দ্রীয় ও জেলা কমিটির সাধারণ সম্পাদক সাংবাদিক এম. আখতার হোসেন উপস্থিত সকলের সামনে উপস্থাপন করেন।

 

অনুষ্ঠানের সংগঠনের জেলা কমিটির সভাপতি জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের ডেপুটি কমান্ডার বীর মুক্তিযোদ্ধা এড. মোঃ নুরুল হুদার সভাপতিত্বে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন জেলা কমিটির ভারপ্রাপ্ত ট্রেজারার এড. কার্ত্তিক দাস, সাংগঠনিক সম্পাদক এড. মোঃ নজরুল ইসলাম স্বপন, সাংস্কৃতিক সম্পাদক সঙ্গীত শিল্পী জহির ইকবাল, দপ্তর সম্পাদক এড. জয়ন্ত কুমার ঘোষ ও কার্যকরী সদস্য মানবাধিকার কর্মী মুক্তাদির মুক্তার। আলোচনা শেষে কেক কেটে সংগঠনের ২৬তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীর উৎসব পালন করেন নেতৃবৃন্দ। এর পূর্বে বিকাল পাঁচটায় নারায়ণগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের কার্যালয়ে স্থাপিত জাতির জনকের প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করা হয়।

নিউজটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..
© All rights reserved © 2020 Telegraphnews24.com
Theme Dwonload From telegraphnews24.Com