1. [email protected] : admi2017 :
  2. [email protected] : annagilliam :
  3. [email protected] : test2246679 :
  4. [email protected] : test25777112 :
  5. [email protected] : test29576900 :
  6. [email protected] : test34936489 :
  7. [email protected] : test44134420 :
  8. [email protected] : test46751630 :
  9. [email protected] : test8373381 :
বৃহস্পতিবার, ২১ অক্টোবর ২০২১, ০৩:১৪ অপরাহ্ন

বার্বাডোসের হোটেলে বৃটিশ দম্পত্তির পতিতা ভাড়া, অতপর….

ডেস্ক রিপোর্ট
  • আপডেট টাইম : শনিবার, ৯ জানুয়ারী, ২০২১
  • ৫৪৫ বার
বৃটিশ দম্পতি অ্যানড্রু লুকার এবং জুলিয়া নাইটলি।পাশে পতিতা মিকায়েলা জ্যাকাস

মধ্যরাতে বৃটিশ দম্পতি অ্যানড্রু লুকার এবং জুলিয়া নাইটলি ২৪ বছর বয়সী জ্যামাইকান পতিতা মিকায়েলা জ্যাকাসকে বিলাসবহুল বার্বাডোসের হোটেল রুমে আমন্ত্রণ জানায়। তাদের এমন উদ্দামতার পর সেখানে ঘেরাও দেয় বেরসিক পুলিশ। শেষ রাতের দিকে নিরাপত্তারক্ষীরা সেখানে অভিযান চালিয়ে আটক করে ওই তিনজনকে। এর মধ্যে বৃটিশ দম্পতিকে ৪৪০০ পাউন্ড জরিমানা করা হয়।

 

একজন নিরাপত্তা রক্ষী ২৪ বছর বয়স্ক মিস জ্যাকাসকে মধ্যরাতের পর ট্রেজার বিচ হোটেলের দেয়ালের উপর দিয়ে উঠতে দেখেন এবং যে ঘরে দম্পতি অবস্থান করছিলেন সেখানে প্রবেশ করেন । পুলিশ ডাকা হয় এবং এই তিনজনকে ঘিরে ফেলা হয় যখন তারা তাদের বিলাসবহুল বাসস্থানের বারান্দায় একটি কোটাল পানীয় উপভোগ করছিল। পরে আটক করা হয় তাদের।

 

মিকায়েলা জাকাস স্বীকার করেছেন যে তিনি টাকার বিনিময়ে লুকার এবং নাইটলির সাথে তিন ভাগে ভাগ হয়ে গিয়েছিলেন। জ্যামাইকা থেকে কথা বলতে গিয়ে তিনি মেইল অনলাইনকে বলেন: ‘হ্যাঁ আমি তাদের দুজনের সাথে ছিলাম, অ্যান্ড্রু এবং জুলিয়া। ‘হ্যাঁ, আমরা একটা সেক্স পার্টি করেছিলাম এবং তারা আমাকে তাদের সাথে সময় ের জন্য টাকা দিয়েছিল। কিন্তু আমি তাদের মারতে চাই না। তারা ভাল মানুষ। আমি আমার সময়ে কি করবো তা অন্য কারো দেখার বিষয় নয়। কার সঙ্গে কিভাবে চলবো সেটাও কারো দেখার বিষয় নয়।

 

একটি ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে মিস জ্যাকাস একটি ভিডিওতে বিতর্কিত জ্যামাইকান ‘টুইকিং’ নাচ পরিবেশন করছেন। তার এক বন্ধু বলেছেন, বৃটিশ ওই দম্পতির সঙ্গে তাকে গ্রেপ্তারের পর পরই তিনি জ্যামাইকা ফিরে গেছেন। তিনি নিজের নাম পত্রিকায় দেখে হতাশ হয়েছেন। মিকায়েলা বলেছেন, আমার এতা প্রচারণা হবে ভাবতেই পারি নি।

 

বৃটেনের রোচডেলের মিস্টার লুকার ও মিসেস নাইটলি। লুকার একজন ব্যবসার সঙ্গে জড়িত। তার স্ত্রী চেডলে হামের একজন বিউটিশিয়ান। তারা করোনাকালে বিধিনিষেধ লঙ্ঘনের অভিযোগ স্বীকার করেছেন। এজন্য তাদের প্রতিজনকে ২২০০ ডলার জরিমানা করা হয়েছে এবং ৭০০০ পাউন্ডের বিনিময়ে জামিন দেয়া হয়েছে। বলা হয়েছে, যদি তারা সাত দিনের মধ্যে এই অর্থ পরিশোধে ব্যর্থ হন তাহলে তাদেরকে ৯ মাসের জন্য জেলে যেতে হবে।

 

মিসেস নাইটলি (৪১) চার সন্তানের একজন সিঙ্গেল মা। তিনি যোগ্যতার দিক দিয়ে একজন নার্স। এর কয়েক বছর আগেও তিনি একবার সংবাদ শিরোনামে পরিণত হয়েছিলেন। তখন তিনি আন্ডারওয়্যার পরে একটি কসমেটিক ক্লিনিকে উস্কানিমূলক ছবি ব্যবহার করেছিলেন। এ জন্য তিনি ক্ষমাও চেয়েছিলেন।

নিউজটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..
© All rights reserved © 2020 Telegraphnews24.com
Theme Dwonload From telegraphnews24.Com