1. [email protected] : admi2017 :
  2. [email protected] : test2246679 :
  3. [email protected] : test25777112 :
  4. [email protected] : test29576900 :
  5. [email protected] : test34936489 :
  6. [email protected] : test44134420 :
  7. [email protected] : test46751630 :
  8. [email protected] : test8373381 :
শনিবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০২:৫৬ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
আইভী ব্যর্থ,নগরবাসীর কাছে প্রমানিত: এড. শাখাওয়াত হোসেন খান কবি কন্ঠে কবিতা পাঠ ও রুপান্তর রৌদ্রছায়া সাহিত্য সম্মাননা ২০২১ অনুষ্ঠিত আলীরটেকে মুজিব শতবর্ষ উপলক্ষে ফাইনাল খেলায় প্রধান অতিথি চেয়ারম্যান প্রার্থী সায়েম আহম্মেদ বাহাউদ্দিন নাসিমের মা’র রুহের মাগফেরাত কামনায় কাউন্সিলর দুলাল প্রধানের মিলাদ ও দোয়া আমি এমন কাজ করে যেতে চাই যেনো মৃত্যুর পরেও লোকে বলে একজন ভালো মানুষ ছিলেন : ২২নং ওয়ার্ডে তরুণ কাউন্সিলর প্রার্থী খান মাসুদ দুর্নীতিমুক্ত রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠায় নৈতিকতাসম্পন্ন ছাত্র সমাজের বিকল্প নেই : ফতুল্লা ইশা ছাত্র আন্দোলন র‌্যাব-১১ এর পৃথক অভিযানে রূপগঞ্জ হতে ১ মাদক ব্যবসায়ী এবং ডাকাতি মামলার ১ পলাতক আসামী গ্রেফতার সিদ্ধিরগঞ্জের ৫নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের কর্মী সভা অনুষ্ঠিত নাসিক ২২নং ওয়ার্ডে কাউন্সিলর পদে খান মাসুদকে কোর্টপাড়া পঞ্চায়েত কমিটির পূর্ণ সমর্থন এবার বঙ্গবন্ধুর ভুল শুধরানোর ভূমিকায় মেয়র আইভী!

নারায়ণগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগে শনির আছর, ৬ নেতার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে কেন্দ্রে বিচার!

টেলিগ্রাফ রিপোর্ট:
  • আপডেট টাইম : শনিবার, ১৯ ডিসেম্বর, ২০২০
  • ৮১ বার

নারায়ণগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগে শনির আছর ভর করেছে! আর এই শনির আছর থেকে দলকে বাঁচাতে ও ৬ নেতার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে কেন্দ্রে বিচার দেয়া হয়েছে!
বিচার চেয়ে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভানেত্রী ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবং দলের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বরাবর চিঠি পাঠানো হয়েছে। কমিটির শীর্ষ ২ নেতার দলীয় শৃঙ্খলা ভাঙ্গের দায়ে ‘আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের’ অনুরোধ করা হয়েছে। নারায়ণগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে কেন্দ্রে প্রেরণ করা হয়েছে এই চিঠি। এর আগে জেলা কমিটির অপর আরও ৪ নেতাকে শৃঙ্খলা ভাঙ্গের কারণে সতর্ক বার্তাও দেওয়া হয়েছিল বলে জানাগেছে।

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ‘জাতীয় কমিটি’র সদস্য আনিসুর রহমান দিপু ও নারায়ণগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি আরজু রহমান ভূইয়া বিরুদ্ধে দলের ভিতরে উপদল সৃষ্টির চেষ্টাসহ দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গের অভিযোগ উঠেছে। যা অতি গুরুতরভাবে নেয়া হচ্ছে বলে জেলা ও শীর্ষের একাধীক নেতার সূত্রে জানা গেছে। আর এজন্য দ্রুতই তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে জানিয়েছেন একাধিক নেতা।

দলের বিশ^স্ত সূত্রে জানাগেছে, শনিবার (১৯ ডিসেম্বর)বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক বরাবর আনিসুর রহমান দিপু ও আরজু রহমান ভূইয়ার সাম্প্রতিক বিভিন্ন কর্মকান্ডের ফিরিস্তি কেন্দ্রে জমা দেয়া হয়েছে। চিঠিতে তাদের দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গের নানান প্রমাণপত্রও সংযুক্ত করা হয়েছে। ওই চিঠির অনুলিপি একই সাথে পাঠানো হয়েছে কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ডা. দিপু মনি, সাংগঠনিক সম্পাদক মির্জা আযম ও দপ্তর সম্পাদক বিপ্লব বড়ুয়ার কাছেও।

অপরদিকে, নারায়ণগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের কমিটির অপর ৪ নেতা- সহ-সভাপতি আসাদুজ্জামান, সহ-সভাপতি আধিনাথ বসু, ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক মো. ইসহাক ও কার্য নির্বাহী কমিটির সদস্য মো. সাদিকুর রহমানকে একই কারণে সতর্ক বার্তা পাঠানো হয়েছে।

কেন্দ্রে পাঠানো পৃথক দুটি চিঠিতে উল্লেখ করা হয়েছে, ‘যে মুহুর্তে আমরা স্বাধীনতা বিরোধী অপশক্তির বিরুদ্ধে রাজপথে লড়াই করছি, ঠিক সেই মুহূর্তে দলের মধ্যে উপদল সৃষ্টি করে দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গ করছেন আনিসুর রহমান দিপু ও আরজু রহমান ভূইয়া। জেলা কমিটির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদককে উপেক্ষা করে আনিসুর রহমান দিপু বেশ কিছু দিন যাবত দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গ করে নারায়ণগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের ব্যানারে আলাদা কর্মসূচি পালন করছেন। গত ৮ ডিসেম্বর সকাল ১০টায় জাতির পিতার ভাস্কর্য ভাক্সচুরের প্রতিবাদে আমরা নারায়ণগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগ প্রতিবাদ মিছিল করি ও নারায়ণগঞ্জ প্রেসক্লাবের সামনে মানব বন্ধন করি। ঠিক সেদিনই জেলা আওয়ামী লীগের ব্যানারে বিকাল ৪টায় আনিসুর রহমান দিপুর নেতৃত্বে পৃথক বিক্ষোভ মিছিল বের হয়। ১৪ ডিসেম্বর শহীদ বুদ্ধিজীবী হত্যা দিবসেও আনিসুর রহমান দিপুর সভাপতিত্বে জেলা আওয়ামী লীগের ব্যানারে পৃথক কর্মসূচি পালন করা হয়। একই ভাবে ১৬ ডিসেম্বর জেলা আওয়ামী লীগের ব্যানারে আরজু রহমান ভূঁইয়ার সভাপতিত্বে পৃথক একটি আলোচনা সভাও অনুষ্ঠিত হয়েছে।’

আর, পৃথক ৪টি সতর্ক বার্তায় উল্লেখ করা হয়, ‘নিজ নিজ পদে থেকে দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গ করে দলের ভাবমূর্তি নষ্ট করছেন। এই ধরণের গঠনতন্ত্র বিরোধী কর্মকা- দলের জন্য ক্ষতিকর। বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের গঠনতন্ত্রের ৪৭ (ক) ধারায় আপনার বর্তমান কর্মকা- গঠনতন্ত্র বিরোধী অপরাধ। স্বাধীনতা বিরোধী অপশক্তির বিরুদ্ধে যে মুহুর্তে আমরা রাজপথে লড়াই করছি, ঠিক সেই মুহুর্তে দলের মধ্যে উপদল সৃষ্টি করা থেকে বিরত থাকার জন্য আপনাদের সতর্ক করা হলো’।

উল্লেখ্য, নারায়ণগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম বঙ্গবন্ধুর হাতে গড়া দল ‘আওয়ামী লীগ স্বাধীনতা বিরোধী’ দল বলায় তৃণমূলে ক্ষোভ সৃষ্টি হতে থাকে। পরিবেশ শান্ত রাখতে কেন্দ্রীয় নেতাদের পরামর্শে জেলা আওয়ামী লীগ ২৩ নভেম্বর দল থেকে অব্যাহতি দেন অভিযুক্ত জাহাঙ্গীর আলমকে। এই ঘটনায় মুখ না খুললেও পরবর্তীতে অভিযুক্ত ওই ৬নেতাসহ কয়েকজন জেলা কমিটির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদককে উপেক্ষা করতে শুরু করেন। তারা জেলা আওয়ামীলীগের ব্যানারে বিদ্রোহী গ্রুপ হিসেবে নানা কর্মসূচি পালন করতে থাকে। তাতে, ৭৩ সদস্যের জেলা আওয়ামীলীগের অন্যসব সদস্যরাসহ জেলার উপজেলা-থানা ও বিভিন্ন ইউনিটের নেতা-কর্মীদের মাঝে ব্যাপক ক্ষোভ সৃষ্টি হয়। তৃণমূলসহ শীর্ষ নেতারা দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গের দায়ে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে দাবি জানাতে থাকেন সংশ্লিষ্টদের। অনেকেই মনে করছেন, এখনই যদি দলে শৃঙ্খলা ফেরানো না যায়, ভবিষৎতে এর অনেক জের টানতে হবে নারায়ণগঞ্জ আওয়ামী লীগকে।

নিউজটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..
© All rights reserved © 2020 Telegraphnews24.com
Theme Dwonload From telegraphnews24.Com